অপরাধ সংবাদ

সোনাইমুড়ীতে সন্ত্রাসী দিয়ে বাড়িঘরে হামলা ভাংচুর, আহত ৬

আরেফিন শাকিল, নোয়াখালী

2020-05-18 11:57:22


নোয়াখালীর সোনাইমুড়ীতে সন্ত্রাসী দ্বারা হামলা চালিয়ে ৫টি বসতঘর ভাংচুর ও লুটপাট চালানো হয়। এতে বাধা দিতে গেলে নারীসহ ৬ জনকে এলোপাতাড়ি কুপিয়ে ও পিটিয়ে জখম করা হয়েছে। এ ঘটনায় ৮ জনকে আসামি করে মামলা দায়ের হয়েছে। রোববার (১৭ মে) রাত ৯টার দিকে সোনাইমুড়ী পৌরসভার ৬ নাম্বার ওয়ার্ডের পূর্ব পাড়ায় এ ঘটনা ঘটে।

আহতরা হলেন- সোনাইমুড়ী পূর্ব পাড়া গ্রামের মনির আহমেদের ছেলে শুভ (১৮), মেয়ে ববিতা আক্তার (২০), প্রতিবেশী মরিয়ম বেগম (৬০), শফিক উল্লা (৪৮), কোহিনুর বেগম (৪৫) ও নাজমা আক্তার (২৫)। আহতদের মধ্যে শুভ ও ববিতাকে রক্তাক্ত অবস্থায় উদ্ধার করে সোনাইমুড়ী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। 

স্থানীয়রা জানান, পৌরসভার সোনাইমুড়ী পূর্বপাড়া গ্রামের আবিদ ভূঁইয়া বাড়ির মৃত আব্দুল আজিজের পুত্র মনির আহমেদের সাথে একই বাড়ির মৃত সেরাজুল হকের পুত্র মোহাম্মদ উল্লাহর জায়গা জমির সীমানা নিয়ে বিরোধ চলে আসছিল। রোববার (১৭ মে) মোহাম্মদ উল্লাহ বাড়ির উঠানে সীমানা প্রাচীর নির্মাণ করছিলেন। এ সময় মনির আহমেদ বাধা দিবে এমন আশঙ্কায় মোহাম্মদ উল্লাহ স্থানীয় দু'দল সন্ত্রাসী ভাড়া করে রাখে। পরে ভাড়াটে সন্ত্রাসীদের মধ্যে একদলের সাথে মোহাম্মদ উল্লাহর টাকা নিয়ে বিরোধ হয়। 

পরে রাত ৯টার দিকে মোহাম্মদ উল্লাহ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্রে সজ্জিত হয়ে বহিরাগত শাহজাহান, আবুল, রাফি, মাসুদ মানিকসহ ১৫/২০ জনকে নিয়ে হামলা চালায়। সন্ত্রাসীরা এলোপাতাড়ি কুপিয়ে মনির আহমেদ, আবুল কাশেম, মিন্টু, জহির, আবুল হোসেন ও শফিকের ঘর দরজা ভাংচুর করে প্রায় ৫ ভরি স্বর্ণালংকার ও নগদ ২ লক্ষাধিক টাকা লুটে নেয়। সন্ত্রাসীরা প্রায় ১০ লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি করে। খবর পেয়ে রাতেই সোনাইমুড়ী থানার ওসি আব্দুস সামাদ ঘটনাস্থলে এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। 

এ ঘটনায় সোনাইমুড়ী পূর্ব পাড়া গ্রামের মৃত আব্দুল আজিজের ছেলে ভুক্তভোগী মনির আহমেদ বাদী হয়ে ৮ জনকে এজাহার নামীয় ও ৪/৫ জনকে অজ্ঞাতনামা বিবাদী করে একটি মামলা দায়ের করেন। 

সোনাইমুড়ী থানার ওসি আব্দুস সামাদ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, পুলিশ রাতেই ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এ ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে, আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।